Analyst Forum

পেসমেন্ট কাকে বলে?

Posted By : iftekhar    April 11, 2019   

image not available

পেসমেন্ট কাকে বলে? পেসমেন্ট পাওয়ার কি কোনো নির্দিষ্ট ব্যবস্থা আছে? পেসমেন্ট এ আসা শেয়ারের পেসমেন্ট মূল্যের যথার্থতা কিভাবে নির্ণয় করা যায়?

মূলত ননলিস্টেড কোম্পানীর এক ধরনের শেয়ার বিক্রয়কে প্লেসমেন্ট বলা যেতে পারে। কোন কোম্পানী আইপিও’তে সার জন্য বিএসইসি তে আবেদন করার পূর্বেই ব্যক্তিগত উদ্যোগে পরিচালক বা তার প্রতিনিধি, বা প্রস্তাবিত ইস্যু ম্যানেজার যে সকল শেয়ার বিক্রয় করেন তাকে প্লে সমেন্ট বলে। কিভাবে প্লে সমেন্ট বিক্রয় করা হবে, কত মূল্যে বিক্রয় করা হবে, কার কাছে বিক্রয় করা হবে, কত শেয়ার প্লেসমেন্ট দেওয়া হবে, কোন অবস্থাতে প্লেসমেন্ট দেওয়া যাবে এই ব্যাপারে পূর্বে কোন নীতিমালা ছিলনা এর ফলে প্লেসমেন্ট শেয়ার উচ্চ মূল্যে ক্রয় করে বহু বিনিয়োগকারী সর্বশান্ত হয়েছে। ২০০৯ ও ২০১০ এই সময় কাল ছিল    প্লেসমেন্ট শেয়ার বিক্রিয়ের স্বর্ণ যুগ। বাজার উর্ধগতি হওয়ার কারণে অধীক লোভের আশায় অনেকেই উচ্চ মূল্যে প্লেসমেন্ট শেয়ার ক্রয় করেছেন, পরবর্তীতে প্লেসমেন্ট শেয়ার বিক্রয়কারী অনেক কোম্পানী আইপিও আসার শর্তপূরন করতে অক্ষম হয়। ফলে না বুঝে প্লেসমেন্ট শেয়ার ক্রয়কারীর অর্থ এখন পর্যন্ত আটকে আছে। জিএমজি এয়ার লাইন আনুমানিক ৩০০ থেকে ৪০০ কোটি টাকার শেয়ার ৪০ টাকা শেয়ার প্রিমিয়ামে বিক্রি করে। দীর্ঘ দিন ধরে এই কোম্পানির ব্যবসা বন্ধ আছে। এই কোম্পানী আদৌ ব্যবসা শুরু করতে পারবে কি না সে ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কোন তথ্য পাওয়া যাইতেছে না। শেয়ার প্লেসমেন্ট বাজারে জিএমজি এয়ার লাইন কালো চিহ্ন হিসেবে থাকবে।

আইপিও’তে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর অর্থ পেতে দীর্ঘ সময় লাগে। অনেক কোম্পানীর তরিৎ টাকার প্রয়োজন হয়। চলমান কাজ বিশেষ করে কলকব্জা, দালান কোঠা ইত্যাদি ক্রয় বা নির্মাণ কাজের জন্য টাকার প্রয়োজন পড়ে। মূলত এসকল কারনে আইপিও উদ্যোক্তা নিজেদের পছন্দসই লোকদের যেমন কর্মচারী, বন্ধুবান্ধবদের নিকট আগে ভাগে কিছু শেয়ার বিক্রয় করে দেন। অনেকের নিজের মূলধন কম। প্লেসমেন্ট দিয়ে আইপিও’র পার্সেনটেজ কমিয়ে নেয়। মূলধনের ৪০% আইপিও’তে আসতে হবে এই নিয়ম করার ফলে প্লেসমেন্ট দেওয়ার পরিমান কমে যেতে পারে। প্লেসমেন্ট অনেক দেশে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীগন নিয়ে থাকেন। পরে তারা ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের দিয়ে নিজেদের বিনিয়োগ উঠিয়ে নেন। ঝুঁকি ব্যবস্থাপনার দিক থেকে প্রতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদেরকে প্লেসমেন্ট দিলে বিনিয়োগকারীগন নিরাপত্তা পায়। একটি নীতিমালার ভিত্তিতে উভয় ষ্টক এক্সচেঞ্জ এ যারা এ্যাকটিভ ব্রোকার বা ডিলার তাদেরকে প্লেসমেন্ট অফার দেওয়ার ব্যবস্থা করলে সত্যকার বিনিয়োগকারীগন উপকৃত হবেন।

প্লেসমেন্ট এর মূল্যায়ন আইপিও’র মূল্যায়নের মতো। তবে সরবরাহকৃত তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত না হলে মূল্যায়ন ভুল হতে পারে। যে সকল কোম্পানী আইপিও’তে আসতে আগ্রহী তারা অডিটেড ফাইন্যান্সিয়াল স্টেটমেন্ট সরবরাহ করে এবং প্লেসমেন্ট মূল্যের যথার্থতা তুলে ধরলে প্লেসমেন্ট দরের যথার্থতা নির্ণয় করা সম্ভব হতে পারে। আমাদের দেশে বর্তমানে যেভাবে প্লেসমেন্ট শেয়ার আদান প্রদান হয় এটি অত্যান্ত ঝুকিপূর্ন। সকলের স্বার্থ রক্ষার জন্য স্বল্প সময়ে প্লেসমেন্ট এর নীতিমালা প্রয়োজন ছিল। বিএসইসি সম্প্রতি একটি প্লেসমেন্ট শেয়ার নীতিমালা প্রণয়ন করেছেন। নীতিমালা অনুসারে একটি কোম্পানী সর্বোচ্চ ১০০ জন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী প্লেসমেন্ট বিক্রি করতে পারবেন। প্লেসমেন্ট এর শেয়ার মূল্যায়ন করা কঠিন। মূল্যায়নের জন্য প্রয়োজনীয় নির্ভরযোগ্য তথ্য না পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। কোন প্রতিষ্ঠান প্লেসমেন্ট দিচ্ছে তাদের সুনামকে সম্বল করে অনেকেই প্লে সমেন্টে টাকা খাটান। প্লে সমেন্ট সরাসরি কোম্পানী থেকে নিতে পারলে বিনিয়োগ ঝুঁকি কম থাকে। অনেক কোম্পানী নানা কারনে আইপিও’র অনুমতি পেতে দেরি হয়। দেরি হলে প্লেসমেন্টে ক্রয় করা শেয়ার বিক্রয়ের জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হয়। যাচাই বাছাই না করে লাভের আশায় যেনতেন পন্থায় প্লেসমেন্ট নেওয়ার ঝুঁকি বেশি। ছোট বিনিয়োগকারীদের প্লেসমেন্ট শেয়ারের ঝুঁকি না নেওয়া উচিৎ। কেউ নিতে চাইলে মোট বিনিয়োগের আংশিক প্লেসমেন্টে বিনিয়োগ করতে পারেন। রেগুলেটরি কতৃপক্ষ প্লেসমেন্টের ব্যাপারে কিছু নিয়ম কানুন বেধে দিলে বিনিয়োগকারীদের ঝুঁকির পরিমান কমবে। 

মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, এফসিএমএ

প্রাক্তন সভাপতি(১৯৯৫)আইসিএমএবি

ব্যবস্থাপনা পরিচালক,

আইল্যান্ড সিকিউরিটিজ লিমিটেড।

ঢাকা স্টক একচেঞ্জ ট্রেক নং-১০৬,

চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জ ট্রেক নং-০০৫,

লেখক: শেয়ার বাজার জিজ্ঞাসা

֩ Comments (0)

No comments, be the first who add

Administrator

Close Name:

Password:

Add Comment

Close       
     
-
-


B I U URL    :) :( :P :D :S :O :=) :|H :X :-*

Add this verification code:   2dcb3



Analyst Forum